Home Page

Selltoearn.com Latest Offer
Offer Id: 57
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: International
Location: ABROAD
Offer Title: 52 Places to Go in 2018

Offer Details: There is no city in the world like New Orleans. Influences from Europe, the Caribbean, Latin America, Africa and indigenous peoples have made it the ultimate melting pot. And that diversity expresses itself in a multitude of ways that define New Orleans in the American imagination: music, food, language, and on and on. Though it’s been a long recovery from Hurricane Katrina, New Orleans isn’t just back on its feet, it is as vibrant as ever — particularly impressive for a 300-year old. In honor of its tricentennial, there are events scheduled throughout the year. Other planned developments include a $6 million makeover for Bourbon Street, streetcar service expansions and additions to the Lafitte Greenway in Mid-City (including a new outdoor bar) and, in early 2019, the Sazerac House, a visitors center and cocktail museum. A burst of hotel openings and the city’s always excellent and diverse restaurants (Compère Lapin, Marjie’s Grill, DTB and other recently opened spots are celebrating that diversity) and bars (Latitude 29, Portside Lounge) only sweeten the deal for travelers looking for tastes of all that America can offer. — Dan Saltzstein
Offer Source: Plz, click here to show
Offer Id: 56
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: Whole Country
Location: DHAKA
Offer Title: রাজধানীতে মধ্যরাতে ঝড়ো বাতাস, শিলা বৃষ্টি

Offer Details: ঢাকা: মধ্য ফাল্গুনের (১৩ ফাল্গুন) রাতে রাজধানীতে ‘কালবৈশাখী’র আগমন! এটাকে ঠিক কালবৈশাখী বলা না গেলেও তার আগমনী বার্তা বলা চলে। রোববার দিনগত রাত সাড়ে ৩টা থেকে রাজধানীতে দমকা বাতাস বইতে শুরু করে। এর কিছুক্ষণ পরই শুরু হয় বৃষ্টি। প্রায় আধ ঘণ্টা থেমে থেমে বজ্রসহ বৃষ্টিপাত চলে। হঠাৎ দমকা বাতাসের সঙ্গে বৃষ্টির কারণে বেশ বেকায়দায় পড়তে হয়েছে ছিন্নমূল মানুষদের। এদিকে বাংলা একাডেমি এবং সোহরাওয়ার্দীর একাংশে বইমেলা এলাকাও বেশ এলোমেলো করে দিয়েছে ক্ষণিকের দমকা বাতাস। ঝড়ো বাতাসের কারণে বেশ কয়েকটি বইয়ের স্টলের ব্যানার ছিঁড়ে গেছে বলে জানা গেছে। এছাড়া বাইরে বিভিন্ন ধরনের স্লোগান সম্বলিত স্ট্যান্ডিং বোর্ডগুলোও পড়ে গেছে। রাতে বইমেলায় দায়িত্বরত শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অমল কৃষ্ণ বাংলানিউজকে জানান, ঝড়ে স্টলের বাইরের কিছু ব্যানার খুলে পড়েছে। কিছু কিছু স্টলের পর্দা খুলে গেছে। মেলার লোকজন এগুলো ঠিকঠাক করছেন। তবে স্টলের তেমন কোন সমস্যা হয়নি বলেও জানান তিনি। দেশের অন্যান্য এলাকার মতো রাজধানীতে শিলা বৃষ্টি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে বাংলানিউজের করেসপন্ডেন্টরা জানিয়েছেন, রাত ২টার পর থেকে দমকা বাতাসের সঙ্গে ঝড়ো বৃষ্টি হতে শুরু করে। এতে বেশ কয়েকস্থানে গাছপালা ভেঙে পড়ার খবরও পাওয়া গেছে। এছাড়া শিলা বৃষ্টির ফলে আমের মুকুলের ব্যাপক ক্ষতি হবে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে। বাংলাদেশ সময়: ০৫১৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৮ পিএম/এসএইচ
Offer Source: Plz, click here to show
Offer Id: 55
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: International
Location: ABROAD
Offer Title: Africa`s week in pictures: 16-22 February 2018

Offer Details: A selection of the best photos from across Africa and of Africans elsewhere in the world this week.
Offer Source: Plz, click here to show
Offer Id: 54
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: International
Location: ABROAD
Offer Title: PyeongChang 2018: The top 11 moments from the Winter Olympics

Offer Details: Pyeongchang (CNN)The 2018 Winter Olympic Games mixed sport and politics in equal measure. As well as politicians and Olympic organizers having to navigate the complex relationship between North and South Korea, the issue of Russian doping overshadowed PyeongChang 2018. One hundred and sixty eight Russian athletes competed for the Olympic Athlete from Russia (OAR) team under a neutral flag, provided they could prove there were clean. CNN Sport has been in Pyeongchang, South Korea, covering the Games and below are our top 11 moments. Let us know your favorite moments of the Winter Olympics on our Facebook page. Chloe Kim At PyeongChang 2018, a worldwide star was born. The reaction to Chloe Kim becoming the youngest snowboarder to win Olympic gold was on a level which only the likes of Usain Bolt experience. The 17-year-old ran the gauntlet of TV interviews and negotiated the maze of reporters with equanimity. But hers is a life changed. According to reports, her limited-edition "Gold Medal" Kellogg`s Corn Flakes box sold out in seven hours, a record said the company. Even before she won gold -- and became the first female to land consecutive 1080s in the halfpipe at the Olympics -- she could already count Nike, Toyota and Mondelez as her sponsors. More blue chip companies will surely follow.
Offer Source: Plz, click here to show
Offer Id: 53
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: International
Location: ABROAD
Offer Title: সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব অনুমোদনের পরও হামলা

Offer Details: গত শুক্রবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতিসংক্রান্ত একটি প্রস্তাব পাস হয়। ওই সময় ‘অবিলম্বে’ ৩০ দিনের যুদ্ধবিরতি কার্যকর করতে জাতিসংঘের পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হয়। ছবি: এএফপিসিরিয়ায় যুদ্ধবিরতি কার্যকরের বিষয়ে আনা একটি প্রস্তাব জাতিসংঘে অনুমোদনের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ফের বিমান হামলা চালানো হয়েছে। রোববার রাজধানীর দামেস্কের অদূরে বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকায় এ হামলা চালায় সিরিয়ার সরকারি বাহিনী। গত শুক্রবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতিসংক্রান্ত একটি প্রস্তাব পাস হয়। ওই সময় ‘অবিলম্বে’ ৩০ দিনের যুদ্ধবিরতি কার্যকর করতে জাতিসংঘের পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হয়। জাতিসংঘের প্রস্তাবে দাতা সংস্থা ও চিকিৎসাসংক্রান্ত প্রয়োজনের বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। তবে এই যুদ্ধবিরতির আওতায় নেই সিরিয়ার কিছু এলাকা। প্রস্তাব অনুমোদনের কয়েক ঘণ্টা পরই সিরিয়ায় ফের বিমান হামলা চালানো হয়। রোববার সিরিয়ার সরকারের মিত্র ইরান জানায়, দামেস্কে ‘সন্ত্রাসীদের’ লক্ষ্য করে হামলা চালানো হবে। বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, রোববার চালানো হামলায় কমপক্ষে তিনজন নিহত হয়েছে। পূর্বাঞ্চলীয় ঘৌওতা এলাকার দোমায় এ হামলা চালানো হয়। ওই এলাকার একটি বিদ্রোহী গোষ্ঠী জানিয়েছে, সরকারি কিছু সেনাকে হত্যা করেছে তারা। যুক্তরাজ্যভিত্তিক সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস এ তথ্য জানিয়েছে। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের প্রধান সমর্থক হলো রাশিয়া ও ইরান। সিরিয়াজুড়ে বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে চলে যাওয়া এলাকা পুনর্দখল করতে বাশার আল-আসাদের সরকারকে সহায়তা করছে এ দুটি দেশ। তবে সিরিয়ার সরকার বেসামরিক নাগরিকদের ওপর হামলা চালানোর কথা অস্বীকার করে আসছে। তারা বলছে, ‘সন্ত্রাসীদের’ নিয়ন্ত্রণ থেকে পূর্বাঞ্চলীয় ঘৌওতা মুক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।
Offer Source: Plz, click here to show
Offer Id: 52
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: Culture & Literature
Location: DHAKA
Offer Title: National Gambhira Festival ends

Offer Details: A two-day National Gambhira Festival began on Friday (February 23) at Bakultala of Charukala (Faculty of Fine Arts), Dhaka University. Chapai Nawabganj-based cultural organisation Diar, who have been working to promote folk genres such as Gambhira and Alkap, held the festival for the second time. Rakib Uddin and Kutubul Alam, a unique pair popularised Gambhira by their performances. Rakib Uddin`s daughter Rajina Aktar Rita and Kutubul Alams son Shujatul Alam Kallol were invited to speak at the event. Inaugurated by ATM Fazle Kabir, member, Law Commission, the programme began with a speech by Anwar Hoque the secretary of Diar who said that the organisation will effectively work on for the revival of Gambhira and other folk genres of music. Prof. Momtaz Uddin Ahmed launched a publication of Diar. In all, 10 Gambhira troupes are performing at the festival. Five groups of the first day were - Chapai Gambhira, Lok Gambhira, Sangeeta Chapai Gambhira, Nabab Gambhira and Roshkosh Gambhira. The other five teams, who performed yesterday, were Proyash Folk Theatre Institute, Chapai Nakshi Gambhira, Bholahaat, Adi Gambhira and Surya Diganta Gambhira. Speakers underpinned the necessity of working for the revival of Gambhira and other traditional folk genres. Poet Apel Abdullah said, “Diar is committed to give Gambhira and other folk genres a strong platform.” Mokhlesur Rahman Mukul, the president of Diar, said that Gambhira centres on a unique style and its objective is to satire the social dogmas. Gambhira has characteristics of a comic conversation between a grandson and his maternal grandfather, accompanied by songs of a specific pattern in a local dialect and folk get-up, all with an objective of satire against social irregularities. Very often the grandson has a name `Gudha` who has an obsession of getting married whereas the grandfather tries to resist that, resulting in a ripple of laughter. They carry on attacking a certain social taboo, or raising awareness for some specific cause. A group of musicians and singers sit behind, supporting the nana-nati pair with vocal and typical music accompaniment such as harmonium, tabla, dotara, banshi (bamboo flute) and mandira. Originated in Malda of India as a Hindu ritual song and later transformed as a satirical folk performance in Chapai Nawabganj district by active influence of a cultural worker namely Sufi Master, Gambhira is now a well-reputed folk genre of music in Bangladesh especially in the north-western part, and one of the most popular forms of Bangladesh folk music.
Offer Source: Plz, click here to show
Offer Id: 51
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: Entertainment/Recreation
Location: ABROAD
Offer Title: দেখতে পারেন শ্রীদেবীর সেরা ৪ ছবি (ভিডিও)

Offer Details: একসময় বলিউডে রাজত্ব করেছিলেন শ্রীদেবী। অভিনয় আর নাচ দিয়ে গত শতকের আশি আর নব্বই দশকের হিন্দি ছবির দর্শকদের মাতিয়ে রেখেছিলেন। ‘হাওয়া হাওয়াই’ ছবি দিয়ে শ্রীদেবীর বলিউডে অভিষেক হয়েছিল ১৯৭৫ সালে। বলিউডের বরেণ্য অভিনেত্রী শ্রীদেবী শনিবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ দুবাইয়ে হৃদ্রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল মাত্র ৫৪ বছর। ‘জুলি’ ছবিতে যখন তিনি অভিনয় করেন, তখন তিনি ছিলেন শিশুশিল্পী। তবে নায়িকা হয়ে অভিনয়জীবন শুরু করেন ১৯৭৯ সালে। তামিল ভাষার ওই ছবির নাম ‘ষোলওয়া শাওন’। শ্রীদেবী অভিনয় করেছেন ১২৬টি ছবিতে। শ্রীদেবী ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান ‘হিম্মতওয়ালা’ ছবিটি মুক্তির পর। ১৯৮৩ সালে মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি। এই ছবিতে শ্রীদেবী অভিনয় করেন জিতেন্দ্রর সঙ্গে।
Offer Source: Plz, click here to show
Offer Id: 50
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: Sports
Location: ABROAD
Offer Title: মেসির সঙ্গে আরেকটি চুক্তি চায় বার্সা

Offer Details: সর্বশেষ চুক্তি নিয়ে অনেক নাটক হয়েছিল। বার্সেলোনার সঙ্গে লিওনেল মেসি চুক্তি করবেন না— এমন খবরও চাউর হয়েছিল। ২০১৮ সালের জুনে আগের চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও মেসি চুক্তি না করায় গুঞ্জনটা বেশি চাউর হয়। দীর্ঘ অপেক্ষার পর গত বছরের নভেম্বরে কাতালানদের সঙ্গে নতুন করে চুক্তি করেন এ আর্জেন্টাইন। নতুন এই চুক্তিতে মেসির বাই আউট ক্লাজ ৭০ কোটি ইউরো। ২০২০-২০২১ মৌসুমে চুক্তি যখন শেষ হবে, পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলারের বয়স তখন হবে ৩৪। হয়তো সেই সময় আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসরও নিতে পারেন মেসি। তাই অবসর নেওয়ার আগে বার্সেলোনার সঙ্গে এ আর্জেন্টাইনের আরেকটি চুক্তির প্রত্যাশা করছেন কাতালান ক্লাব সভাপতি মারিয়ো বার্তোমেউ। তার ভাষায়, আমরা এমন একটি ক্লাব যারা ভালো ফুটবলে বাজি ধরে। আমাদের খেলার আলাদা একটা ধরন আছে এবং মেসি বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়, আমাদের অন্যতম খেলোয়াড়। আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা এক উদাহরণ। আমরা তাকে এখানে কেবল একজন খেলোয়াড় হিসেবে চাই না, ভবিষ্যতে একজন কিংবদন্তি হিসেবে চাই। মেসির ক্ষেত্রেও আমার একই রকম আশা। এখানে সে চার বছরের চুক্তি করেছে। কিন্তু আমি মনে করি না এ চুক্তিই শেষ।
Offer Source: Plz, click here to show
Offer Id: 49
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: IT/Telecommunication
Location: DHAKA
Offer Title: স্মার্টফোন নিয়ে সামাজিক ভাবনা

Offer Details: বন্ধুবান্ধব মিলে বা নিজের সঙ্গীকে নিয়ে কোথাও খেতে যাওয়া হয়েছে। আড্ডার সময়টাতে দেখা যাচ্ছে সবাই পাশের মানুষের চেয়ে হাতে থাকা স্মার্টফোনের পর্দায়ই নজর বেশি রাখছেন। এমন ঘটনা এখন হরহামেশাই দেখা যায়। মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট-এ শিষ্টাচার বা ভদ্রতা না মানার বিষয়ে ‘মিস ম্যানারস’ নামের কলামের লেখিকা জুডিথ মার্টিনকে এমন ঘটনার বিষয়ে একটি প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল। সামনে বন্ধুদের সঙ্গে কোন আড্ডায় বা প্রিয়জনের সঙ্গে ডেটিংয়ে গেলে কেউ তার নিজের স্মার্টফোনটিতে না তাকিয়ে কতক্ষণ পার করেন তা লক্ষ্য করতে বলা হয় তাকে। জবাবে তিনি বলেন, ‘যদি এটা হয়ই, তবে তা হতে হবে খাওয়া শেষে।’ ‘আমি মনে করি না আমার সামনে কেউ এটি করার সাহস পাবে’- যোগ করেন এই সাংবাদিক। তিনি এমনটা বললেও অধিকাংশ ক্ষেত্রে পাশের মানুষকে তার মোবাইল ডিভাইসে মনোযোগ দেওয়া থেকে দূরে রাখা কষ্টসাধ্য, এক্ষেত্রে কারও ব্যক্তিগত অধিকারে হস্তক্ষেপের বিষয়টিই চলে আসে। বর্তমানে প্রচলিত হয়ে ওঠা এই বিষয় নিয়ে কেন এত কথা, মার্কিন দৈনিক নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- ডিভাইসগুলোর দিকে আমাদের একটানা এভাবে তাকিয়ে থাকা সামাজিক আর শারীরিক উভয় ক্ষেত্রেই নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। মানুষের মাথার গড় ভর হচ্ছে ১০ থেকে ১২ পাউন্ড। কেউ যখন ফেইসবুক বা কোন কিছু দেখার জন্য মাথা ঝুকিয়ে হাতে থাকা মোবাইল ফোনের দিকে তাকাচ্ছেন, তখন ভূমির দিকে আমাদের মাথায় প্রয়োগ হওয়া অভিকর্ষজ বল আর ঘাড়ের ওপর পড়া চাপ ৬০ পাউন্ড পর্যন্ত বেড়ে যেতে পারে। টেক্সট বা কিছু দেখার জন্য ঘাড় বাঁকিয়ে মাথা ঝুঁকিয়ে তাকানোর অবস্থাটাকে বলা হয় ‘টেক্সট নেক’। এটি এখন স্বাস্থ্যগত সমস্যা হয়ে দাঁড়াচ্ছে আর এই সমস্যায় ভুগছেন এমন মানুষের সংখ্যাও অসংখ্য। এক্ষেত্রে যেভাবে মাথাটা ঝোকানো হয় তার অন্যান্য স্বাস্থ্য ঝুঁকিও রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে চিকিৎসা খাতে মেরুদণ্ডবিষয়ক গবেষণা প্রকাশক দ্য স্পাইন জার্নাল-এ ২০১৭ সালে প্রকাশিত একটি গবেষণা প্রতিবেদনে। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সেন্টার ফর বায়োটেকনোলজি ইনফরমেশন-এর তথ্যমতে, চালচলন আর অঙ্গভঙ্গি মানুষের মনের অবস্থা, আচরণ আর স্মৃতিতে প্রভাব ফেলে বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে। অধিকাংশ সময় মাথা ঝুকিয়ে থাকা মানুষের মন বিষণœ করে তুলতে পারে। আমরা যেভাবে দাঁড়াই তা আমাদের হাঁড় ও মাংসের গঠনে দরকার হওয়া শক্তির পরিমাণ থেকে শুরু করে আমাদের ফুসফুস যে পরিমাণ অক্সিজেন নিতে পারে তা পর্যন্ত সবকিছুতে প্রভাব রাখে। এই সমস্যার প্রতিকার কী, একদমই সহজ, আর তা হচ্ছে বসে থাকা। অ্যামি কাডির মতো সামাজিক মনোবিদরা দাবি করছেন, আত্মবিশ্বাসের ভঙ্গিতে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকলেও তা মস্তিষ্কে কোরটিসোল আর টেস্টোসটেরোন হরমোন প্রভাব বাড়িয়ে দেয় যা উপরের সমস্যাগুলো প্রতিরোধ করতে পারে। আরেকটি সমস্যা হচ্ছে মনযোগের অভাবে সৃষ্ট অন্ধত্ব। ৭৫ শতাংশ আমেরিকান বিশ্বাস করেন কয়েকজন মিলে একসঙ্গে আড্ডার মুহূর্তে তাদের স্মার্টফোন ব্যবহার আড্ডায় মনোযোগ দেওয়ার ক্ষমতায় কোন প্রভাব ফেলে না, এ তথ্য গবেষণা প্রতিষ্ঠান পিউ রিসার্চ সেন্টারের। প্রতিষ্ঠানটি আরও জানায়, এক-তৃতীয়াংশ মার্কিনী বিশ্বাস করেন সামাজিক আড্ডায় ফোনের ব্যবহার আসলে আলাপচারিতায় নতুন বিষয়ের আলাপ তৈরি করে। কিন্তু আসলেই কি তাই? এ প্রশ্নের জবাবে শিষ্টাচার বিশেষজ্ঞ আর সামাজিক বিজ্ঞানীরা একজোট, সবারই উত্তর ‘না’। সবসময় স্মার্টফোন চালু রেখে তা ব্যবহার করতে থাকার এই আচরণ আমাদেরকে বাস্তবতা থেকে দূরে সরিয়ে দেয়। আর স্বাস্থ্যগত প্রভাব ছাড়াও, যদি আমরা মাথা ঝুকিয়ে রাখি আমাদের যোগাযোগ দক্ষতা আর ভদ্রতাও কমে যায়। নিউইয়র্ক ইউনিভার্সিটির মনোবিদ্যা অধ্যাপক নিওবে ওয়ে বলেন, ‘কোনোভাবে আমরা ভাবি এই অসামাজিক আচরণ আমাদের ওপর কোন প্রভাব ফেলছে না।’ কম বয়সীদের মানসিক উন্নয়ন নিয়ে কাজ করা ওয়ে বলেন, এই মাথা ঝোকানো অবস্থা আমাদের বর্তমান থেকে দূরে সরিয়ে দেয়, আমরা যাদের সঙ্গে থাকি না কেন। আর এটি শুধু তরুণদের সমস্যাই নয়। এটি মজ্জাগত, অনুকরণ করা, আর অধিকাংশ সময়ই তা বড়দের কাছ থেকে। যখন শিশুরা দেখে তাদের মা-বাবা মাথা ঝুকিয়ে আছে, তারা বিষয়টি অনুকরণ করে। এই অধ্যাপক বলেন, ‘অনেক বেশি যা হচ্ছে তা হলো আমরা আমাদের শিশুদের সঙ্গে কথা বলছি না। তারা যখন কমবয়সী তখন তাদের সামনে প্রযুক্তি রাখছি আর আমরা বড়রা আমাদের প্রযুক্তিপণ্যগুলো নিয়ে মগ্ন হয়ে থাকছি।’ “আপনি এটি দেখে থাকবেন : ভাবুন কিছু মা-বাবা তাদের চিৎকার করতে থাকা শিশুদের সঙ্গে কীভাবে আচরণ করছেন।- ‘এই যে, তোমার আইফোন নাও আর যাও।’ তা না করে চলুন এভাবে কথা বলি- ‘তোমার কী নিয়ে সমস্যা হচ্ছে’।” “আমরা মনে করি, ‘কোনভাবে আমাদের শিশুরা জানবে কোনটা ভাল আর খারাপ যোগাযোগ। তাদের মধ্যে সহমর্মিতা থাকবে।’ কিন্তু আমি যখন আমার ছেলের ঘরে যাই, সেখানে দেখি সাতজন কিশোর তাদের ফোনের দিকে তাকিয়ে আছে, তাদের মধ্যে কেউই কোন কথা বলছে না, এমন সব ধরনের অসংশ্লিষ্টতা ঘটছে। ফেসবুকটাই সব সমস্যা নয়, আমরা কীভাবে ফেসবুক ব্যবহার করছি সেটাই সমস্যা। এই সমস্যায় সব বয়সীরাই আক্রান্ত বলে উল্লেখ করা হয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস-এর প্রতিবেদনে। ২০১০ সালের এক গবেষণায় দেখা যায়, আট থেকে ১৮ বছর বয়সীরা দিনের সাড়ে সাত ঘণ্টারও বেশি সময় এ ধরনের মাধ্যমে ব্যয় করছে। ২০১৫ সালে পিউ রিসার্চ সেন্টার এক প্রতিবেদনে জানায়, ২৪ শতাংশ কিশোর ‘প্রায় সবসময়’ অনলাইন থাকে। বয়স্করা যে ভালো অবস্থায় আছেন তাও নয়। অধিকাংশ বয়স্ক ব্যক্তি দিনের ১০ ঘণ্টা বা তার বেশি সময় এ ধরনের ইলেকট্রনিক মাধ্যমে ব্যয় করেন, ২০১৭ সালে গবেষণা প্রতিষ্ঠান নিলসনের টোটাল অডিয়েন্স রিপোর্ট নামের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে আসে। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সেইফটি কাউন্সিলের প্রতিবেদনে বলা হয়, চালকের মোবাইলফোন ব্যবহার মাতাল অবস্থায় গাড়ি চালানোর চেয়ে বেশি দুর্ঘটনার ঝুঁকি রাখে। গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে প্রতি বছর ১৬ লাখ দুর্ঘটনা হয়, যেখানে অধিকাংশ সময়ই চালক ১৮ থেকে ২০ বছর বয়সী। যুক্তরাষ্ট্রের মোট দুর্ঘটনার এক-চতুর্থাংশের জন্যই দায়ী টেক্সটিং। সমাজ বিজ্ঞানী শেরি টারকল তার বই ‘এ্যালোন টুগেদার : হোয়াই উই এক্সপেক্ট মোর ফ্রম টেকনোলজি এ্যান্ড লেস ফ্রম ইচ আদার’-এ ৩০ বছরের পারিবারিক যোগাযোগ নিয়ে বিশ্লেষণা করেছেন। এই বিশ্লেষণ থেকে তিনি বুঝতে পারেন, শিশুরা এখন মা-বাবার মনোযোগ পেতে তাদের ডিভাইসগুলোর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। এর ফলে স্বতঃস্ফূর্তভাবে কাউকে ফোন করতে বা সামনাসামনি যোগাযোগে ভয় পায় এমন এক প্রজন্ম তৈরি হতে যাচ্ছে। বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট শন পার্কার সম্প্রতি বলেছেন, এই প্লাটফর্ম আসক্তিপূর্ণ করে বানানো হয়েছে। নিজের প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানের সমালোচনা করে তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠার সময় তার কোন ধারণা ছিল না যে তিনি কী করছেন। পার্কার বলেন, ‘শুধু সৃষ্টিকর্তা জানেন যে, এটি আমাদের শিশুদের মস্তিষ্কের সঙ্গে কী করছে, ‘ফেসবুক এমন প্রথম এ্যাপ্লিকেশন, যে এ্যাপ্লিকেশনগুলো বানানোর পেছনে পুরো চিন্তাধারা ছিল যে, ‘আমরা কীভাবে আপনার যতটা বেশি সম্ভব সময় ব্যয় করব এবং সচেতন মনোযোগ আকর্ষণ করবো।” ‘এর মানে হলো, প্রতিটা সময় আপনাকে এমন কিছু দিতে হবে যাতে আপনি নজর দেবেন, কারণ আপনি ছবি বা পোস্টে লাইক, কমেন্ট করেন। এবং এতে আপনি নিজেও আরও বেশি কনটেন্ট শেয়ার করবেন। আর সেগুলো আরও বেশি লাইক কমেন্ট পাবে,’ যোগ করেন পার্কার। পার্কার আরও বলেন, ‘যখন ফেসবুক চলছিল তখন আমাদের এমন মানুষ ছিল যারা আমার কাছে এসে হয়তো বলবে যে ‘আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেই।’ এবং আমি হয়তো বলব, ঠিক আছে। আপনি জানেন আপনি আসবেন। আমি জানি না আমি কী সত্যি বুঝেছিলাম কিনা যে- আমি যা বলছিলাম তার প্রভাব কী হতে পারে। কারণ একশ’ বা দুইশ’ কোটির একটি নেটওয়ার্ক একটি অনিচ্ছাকৃত প্রভাব ফেলে। এটি সত্যি সমাজ এবং অন্যান্যদের সঙ্গে আপনার সম্পর্ক বদলে দেয়।’ খুব বেশি সময় ব্যয় হওয়ায় তিনি নিজে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করেন না বলে জানিয়েছেন পার্কার। আর কিছুটা মজা করে তিনি বলেন, ‘এখনও আমার ফেসবুকে একটি এ্যাকাউন্ট আছে। যদি মার্ক এটি শোনে সম্ভবত সে আমার এ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দেবে। আমি এই প্লাটফর্মগুলো ব্যবহার করি, প্লাটফর্মগুলোকে আমাকে ব্যবহার করতে দেই না।’ এক্ষেত্রে অনেক আসক্তির মতো সমস্যাটা স্বীকার করাই চিকিৎসার প্রথম ধাপ আর এর সমাধান প্রযুক্তিবিরোধী নয়, সমাধান হচ্ছে আলাপচারিতার পক্ষে- এমনটাই বলেন টারকল। বাস্তবিক অর্থে এই সমস্যার কোন সাদাকালো সহজ সমাধান নেই। এক্ষেত্রে অন্যদের দিকে লক্ষ্য করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে প্রতিবেদনটিতে। চলার সময় কোথাও লালবাতি দেখে থামার পর আশপাশে একটু তাকিয়ে দেখা যেতে পারে কারা আছেন। নিউইয়র্ক টাইমস-এ শিষ্টাচার বিষয়ে মাসিক কলাম লেখক আলফোর্ডের মতে, ফোনের চেয়ে কারও সামনে দাঁড়ানো মানুষটিকে কম প্রাধান্য দেওয়া প্রচলিত নিয়মে কিছুটা আগ্রাসী মনোভাবের পরিচয় দেয়। তিনি বলেন, ‘কোন আড্ডায় বা কারও সঙ্গে অবস্থানকালে আপনি সবার আগে ফোন ব্যবহার শুরু করবেন না। ধৈর্য শূন্যে নিয়ে আসবেন না।’
Offer Source: Plz, click here to show
Offer Id: 48
Company Name: Selltoearn.com
Contact No.: 01727442293
E-mail: info@selltoearn.com
Business Type: Trade and Industry
Location: DHAKA
Offer Title: ছয় মাসে বাণিজ্য ঘাটতির রেকর্ড

Offer Details: চলতি অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর) বাণিজ্য ঘাটতি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৯৫৩ কোটি ৩৪ লাখ ডলার। স্থানীয় মুদ্রায় এ ঘাটতি প্রায় ৮৮ হাজার কোটি টাকা (প্রতি ডলার ৮৩ টাকা ৫০ পয়সা হিসাবে)। এ বাণিজ্য ঘাটতি এ যাবতকালের সর্বোচ্চ বলে জানা গেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে। দৃশ্যমান বিনিয়োগ না থাকলেও আমদানি ব্যয় ব্যাপক ভিত্তিতে বাড়ছে। কিন্তু সেই তুলনায় রফতানি আয় বাড়ছে না। এতেই বাণিজ্য ঘাটতি বেড়ে যাচ্ছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, জুলাই-ডিসেম্বর ছয় মাসে পণ্য আমদানিতে ব্যয় হয়েছে ২ হাজার ৮৪৪ কোটি ডলার, যা গত বছরের একই সাময়ে ছিল ২ হাজার ২৬০ কোটি ডলার। ছয় মাসে আগের বছরের তুলনায় আমদানি বেড়েছে প্রায় ২৬ শতাংশ। ২৬ শতাংশ আমদানিতে ব্যয় বাড়লেও রফতানি আয় বেড়েছে মাত্র ৭ শতাংশ। যেমন- চলতি অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে রফতানিতে আয় হয়েছিল ১ হাজার ৭৯১ কোটি ডলার, যেখানে আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ হাজার ৬৭২ কোটি ডলার। রফতানি আয়ের তুলনায় আমদানি ব্যয় ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায় বাণিজ্য ঘাটতি এ অস্বাভাবিক হারে বেড়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, দৃশ্যমান বিনিয়োগ না বাড়লেও আমদানি ব্যয় বেড়েছে রেকর্ড হারে। এদিকে অর্থের সংস্থান না করে ব্যাংকগুলো ব্যাপক ভিত্তিতে আমদানি করায় বৈদেশিক মুদ্রার চাহিদা হঠাৎ করে বেড়ে যায়। ৭৯ টাকার ডলার একপর্যায়ে সাড়ে ৮৩ টাকায় উঠে যায়। বছরের শেষ প্রান্তে এসে বৈদেশিক মুদ্রাবাজার স্থিতিশীল রাখতে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে নানা উদ্যোগ নেয়। বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে ব্যাংকগুলোর কাছে ডলার বিক্রি শুরু করে। মাত্র সাত মাসে প্রায় দেড় শ’ কোটি ডলার সরবরাহ করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এদিকে দৃশ্যমান বিনিয়োগ না বাড়লেও ব্যাপক ভিত্তিতে মূলধনী যন্ত্রপাতিসহ পণ্য আমদানি বেড়ে যায়। একপর্যায়ে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে ব্যাংকগুলোর ঋণকার্যক্রমের ওপর মনিটরিং করা হয়। একই সাথে বিনিয়োগ সীমা কমিয়ে দেয়া হয়। আমদানি ব্যয় ব্যাপক হারে বাড়লেও কাক্সিক্ষত হারে রফতানি বাড়ছে না। কারণ হিসেবে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, শিল্প খাতে নানা প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। বিশেষ করে ব্যাংক ঋণ এখনো ডাবল ডিজিটের ওপর রয়েছে। এর পাশাপাশি দীর্ঘ দিন ধরে চলে আসা গ্যাস সঙ্কট কাটছে না। আবার নতুন করে গ্যাস সংযোগ দেয়া হচ্ছে না। পাশাপাশি দেশে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর কর্মকাণ্ড না থাকলেও বিনিয়োগকারীদের আস্থার সঙ্কট কাটছে না। এর বাইরে বিদ্যুৎ, গ্যাসের দাম দফায় দফায় বাড়ানোর ফলে ব্যবসায়ীদের পণ্যের উৎপাদন ব্যয় বেড়ে গেছে। বিপরীতে প্রতিযোগী দেশগুলো স্থানীয় মুদ্রার মান দফায় দফায় ডলারের বিপরীতে অবমূল্যায়ন করেছে। সব মিলে প্রতিযোগী দেশগুলোর সাথে প্রতিযোগিতায় টিকতে পারছেন না স্থানীয় রফতানিকারকেরা। এ কারণেই কাক্সিক্ষত হারে রফতানি আয় বাড়ছে না। এতে সামগ্রিকভাবেই পণ্য বাণিজ্য ঘাটতি বেড়ে যাচ্ছে। ব্যবসায়ীদের মতে, বর্তমান অবস্থা অব্যাহত থাকলে একসময় স্থানীয় শিল্পগুলো বন্ধ হয়ে যাবে। দেশ পুরোপুরি আমদানিনির্ভর হয়ে যাবে। যার সামগ্রিক নেতিবাচক প্রভাব পড়বে অর্থনীতিতে। সম্ভাব্য পরিস্থিতি এড়াতে রফতানিকারকদের প্রতিযোগিতার সক্ষমতা ধরে রাখতে ইতিবাচক পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন বলে ব্যবসায়ীরা মনে করছেন।
Offer Source: Plz, click here to show


মিডিয়া এসটিএন**** info@selltoearn.com***

মিডিয়া এসটিএন

Kaliakair, Gazipur, Dhaka, Bangladesh.
https://www.selltoearn.com

প্রধান উপদেষ্টা সম্পাদক: Selltoearn.com

E-mail:selltoearnmoney@gmail.com

উপদেষ্টা সম্পাদক: Selltoearn.com

কারিগরি সহযোগীতায় :
হেমাস আইটি http://www.selltoearn.com

E-mail: info@selltoearn.com

মিডিয়া এসটিএন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার মিডিয়া এসটিএন